সেনাবাহিনী প্রধান কর্তৃক এডহক ১১ বীর (মেকানাইজ্ড)’কে রেজিমেন্টাল কালার প্রদান

ঢাকা, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ ঃ সেনাবাহিনী প্রধান ও বীর রেজিমেন্টের কর্নেল অব দি রেজিমেন্ট জেনারেল আজিজ আহমেদ, বিজিবিএম, পিবিজিএম, বিজিবিএমএস, পিএসসি, জি আজ রবিবার (১৮-১১-২০১৮) সাভার সেনানিবাসে সিএমপিসিএন্ডএস এর প্যারেড গ্রাউন্ডে আয়োজিত এক মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজের মাধ্যমে এডহক ১১ বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্ট (মেকানাইজ্ড)’কে রেজিমেন্টাল কালার প্রদান করেন।

সেনাবাহিনী প্রধান প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছালে তাঁকে স্বাগত জানান উপস্থিত প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসারগণ, জ্যেষ্ঠ অফিসারগণ এবং জিওসি ৯ পদাতিক ডিভিশন ও এরিয়া কমান্ডার, সাভার এরিয়া মেজর জেনারেল মোঃ আকবর হোসেন। সেনাবাহিনী প্রধান রেজিমেন্টাল কালার প্রাপ্তির বিরল সম্মান ও গৌরব অর্জন করায় ‘এডহক ১১ বীর (মেক)’ এর সকল সদস্যকে আন্তরিক অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন এবং কর্মদক্ষতা, কঠোর পরিশ্রম এবং কর্তব্য নিষ্ঠার স্বীকৃতি স্বারূপ অর্জিত পতাকার মর্যাদা রক্ষার জন্য যে কোন ত্যাগ স্বীকারে সব সময় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ প্রদান করেন।

প্যারেড শেষে সেনাপ্রধান সাভার ডিওএইচএস -এর কেন্দ্রীয় মসজিদ, সেনা স্কুল এন্ড কলেজ এবং দুটি লেকের উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন। এছাড়াও সাভার সেনানিবাস এলাকায় সেনা শপিং কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন এবং সাভারের খেজুরটেক এলাকায় জেসিওদের জন্য আবাসিক কমপ্লেক্স -এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

উল্লেখ্য, মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর অতুুলনীয় ভুমিকা এবং পরবর্তীতে এর অপরিসীম গুরুত্ব অনুধাবন করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রথম বিএমএ স্বল্প মেয়াদী কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্যারেড পরিদর্শনের সময় এ বাহিনীকে যুযোপযোগী ও বিশ্বে একটি আধুনিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার অঙ্গীকার ও প্রত্যয় ব্যক্ত করেছিলেন। এই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে তাঁরই সুযোগ্য কণ্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় সেনাবাহিনীর কলেবর বৃদ্ধিসহ ইষ্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের পাশাপাশি ১৯৯৯ সালে দ্বিতীয় পদাতিক রেজিমেন্ট হিসেবে বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্ট প্রতিষ্ঠা করা হয়।

অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনীর উর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাগণ এবং সাভার সেনানিবাসের সকল অফিসার, জেসিও ও বিভিন্ন পদবীর সৈনিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।